বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট অবতরণের সময় একজন কেবিন ক্রু পড়ে গিয়ে মারাত্মক আহত হয়েছেন। এসময় তার পা ভেঙে যায়।

ওই ক্রুর নাম সাইয়েদা নাজনীন সানজানা। বিমানের ওই ফ্লাইটের ক্যাপ্টেন ছিলেন রিয়াসাত ও ফার্স্ট অফিসার রওনক।

মঙ্গলবার (৪ জুন) সন্ধ্যায় নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের আগ মুহূর্তে এ ঘটনা ঘটে। ফ্লাইটটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ দিয়ে পরিচালিত হচ্ছিল।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা যায়, কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের আগ মুহূর্তে কিছুটা ঝাঁকুনি দিচ্ছিল বিমান। ক্যাপ্টেন সবাইকে সিট বেল্ট বেঁধে বসতে বলেন।

সেসময় কেবিন ক্রু একজন যাত্রীর সিটবেল্ট বাঁধায় সহযোগিতা করছিলেন। ঝাঁকুনির কারণে তিনি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পড়ে মারাত্মক আহত হন। ফ্লাইট অবতরণের পর চিকিৎসকরা জানান, তার পা ভেঙে গেছে। তার পায়ে প্লাস্টার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিমানের মহাব্যবস্থাপক-জনসংযোগ বোসরা ইসলাম এক বার্তায় জানান, উড়োজাহাজ অবতরণের সময় একজন কেবিন ক্রু সঠিক অবস্থান না নেওয়ায় পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। বাস্তব জীবনের উক্তি

জীবন নিয়ে উক্তি