ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে কুয়েতে প্রবেশ করছে পর্যাপ্ত কোরবানির পশু। কোরবানির পশুর চাহিদার কথা মাথায় রেখে এরইমধ্যে বিভিন্ন দেশ থেকে পশু আমদানি করছে কুয়েত।

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল আজহা। এবার ঈদুল আজহা পালিত হবে ১৬ জুন (চাঁদ দেখা সাপেক্ষে)। কোরবানির পশুর দাম এই ঈদুল আজহায় ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে রাখতে কুয়েতের ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন দেশ থেকে উট, দুম্বা, গরুসহ বিভিন্ন কোরবানীর পশু আমদানি করেছেন।

স্থানীয় নাগরিকদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে থাকা সৌদি নুয়াইমি ভেড়া এবং ইরানি শাফালি ভেড়াও আমদানি করা হয়েছে। এছাড়াও জর্ডান থেকে ইরাক হয়ে কুয়েতে আনা হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার দুম্বা।

কাবাদ পশু বাজারের বিক্রেতারা জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়া, সোমালিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে দুম্বা, গরু আসছে পর্যাপ্ত সংখ্যায়।ক্রেতারা পছন্দের পশুটি কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন কাবাদ অঞ্চলের পশু মার্কেটে। গতবারের চেয়ে এবারে গরুর দাম বেশি বলছেন প্রবাসী ক্রেতারা প্রকারভেদে গরু সাড়ে তিনশ দিনার থেকে শুরু করে বারোশ দিনারে বিক্রি হচ্ছে। আর দুম্বা ও ছাগল বিক্রি হচ্ছে আশি দিনার থেকে দুইশ দিনার পর্যন্ত।

জীবন নিয়ে উক্তি