প্রিমিয়াম বাইকের দরজা খুলে দিয়েছে ভারত। একে একে আসছে বিশ্ব বাজারে দাপানো সব জনপ্রিয় ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল। ২০২৩ সালে এমনই ৫ মোটরবাইক লঞ্চ হয়েছে বাজারে। যা নিয়ে ইতিমধ্যে তুমুল চর্চা শুরু হয়েছে বাইক-প্রেমীদের মধ্যে দমদার ইঞ্জিন থেকে পারফরম্যান্স এবং লুক কোথায় কোথায় আপনার নজর কাড়বে দেখে নিন।

২০২৩ সালে একাধিক দুর্দান্ত মোটরসাইকেল লঞ্চ হয়েছে ভারতের বাজারে। যা আগামী কয়েক বছর দেশে ঝড় তুলতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে। জনপ্রিয় মার্কিন সংস্থা হার্লে-ডেভিডসন এনেছে তাদের সবথেকে সস্তা টু হুইলার। পাশাপাশি ব্রিটেনের ট্রায়াম্ফ মোটরসাইকেলও তুখোড় দুটি বাইক এনেছে ভারতে।

এই ব্র্যান্ডগুলো আন্তর্জাতিক বাজারে বেশ পরিচিত। দাম এবং উপলব্ধতার কারণে ভারতীয়দের কাছেও ধীরে ধীরে গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠেছে। দেরি না করে আসুন সেই 5 বাইক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে রাখা যাক।

ট্রায়াম্ফ স্পিড 400/স্ক্র্য়ম্বলার 400X
দেশীয় সংস্থা বাজাজ অটো’র সঙ্গে হাত মিলিয়ে ভারতে দুটি খাসা বাইক লঞ্চ করেছে ট্রায়াম্ফ। একটি স্পিড 400, আর একটি স্ক্র্য়ম্বলার 400X। দুই বাইকেই রয়েছে 398 সিসি ইঞ্জিন যা সর্বাধিক 40 হর্সপাওয়ার শক্তি উত্পন্ন করতে পারে। তীক্ষ্ণ লুকের ডিজাইন, কমফোর্ট এবং পারফরম্যান্স দিতে পারে বলে দাবি সংস্থার। মোটরসাইকেলগুলোর দাম রয়েছে যথাক্রমে : 2.33 লাখ টাকা এবং 2.62 লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

হিরো ক্যারিশমা XMR
ভারত তথা বিশ্ব বাজারে জনপ্রিয় দু চাকা প্রস্তুতকারক সংস্থা হিরো মটোকর্প। যারা গত বছরই আইকনিক ক্যারিশমা নতুন অবতারে হাজির করেছে। 210 সিসি ইঞ্জিনের এই বাইক দারুণ ছাপ ফেলেছে বাজারে, সর্বোচ্চ 25.5 হর্সপাওয়ার শক্তি তৈরি করতে পারে XMR। সঙ্গে রয়েছে স্পোর্টস বাইকের মতো ডিজাইন ও লুক। মিলবে একাধিক ফিচার ও স্পেসিফিকেশনও। বাইকের দাম 1.80 লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

কেটিএম 390 ডিউক
আন্তর্জাতিক বাজারে কেটিএম একটি বড় নাম, সংস্থা রেসিং বাইকও তৈরি করে। তারাই 2023 সালে ভারতে নতুন রূপে লঞ্চ করেছে 390 ডিউক। যেখানে মিলবে 399 সিসি ইঞ্জিন যা সর্বাধিক 45 হর্সপাওয়ার উত্পন্ন করতে সক্ষম। ভারতীয় বাজারে বাইকের দাম 3.11 লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

টিভিএস অ্যাপাচি RTR 310
আফ্রিকার একাধিক দেশে টিভিএস জনপ্রিয় নাম। ভারতেও বিখ্যাত তাদের মোটরসাইকেল। এই সংস্থা 2023 সালে যে বাইকটি লঞ্চ করে সবাইকে চমকে দিয়েছে তা হল অ্যাপাচি RTR 310। এতে রয়েছে 312 সিসি ইঞ্জিন যা সর্বোচ্চ 35 হর্সপাওয়ার শক্তি উত্পন্ন করতে পারে। মোটরসাইকেলের দাম 2.43 লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

হার্লে-ডেভিডসন X440
হার্লে-ডেভিডসনের সবথেকে সস্তা বাইক X440। যা গত বছর ভারতে পা রেখেছে। 440 সিসি লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে এতে যা সর্বোচ্চ 27.37 হর্সপাওয়ার উত্পন্ন করতে পারে। তুখোড় ডিজাইনের এই বাইক বহু মানুষ পছন্দ করেছেন। মোটরসাইকেলের দাম রাখা হয়েছে 2.40 লাখ টাকা (এক্স-শোরুম)।

জীবন নিয়ে উক্তি