বাংলাদেশি পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেছেন হামজা দেওয়ান চৌধুরী। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১ মাসের মধ্যে বাংলাদেশের পাসপোর্ট হাতে পাবেন লেস্টার সিটির এই ফুটবলার। তবে বাংলাদেশের হয়ে মাঠে নামতে আরও কিছু প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে তাকে।
হামজা চৌধুরী।

হামজা চৌধুরীকে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের হয়ে খেলাতে বছরের শুরু থেকেই কাজ শুরু করেছে ফুটবল ফেডারেশন। এ জন্য মাস দুয়েক আগে নির্ধারিত প্রক্রিয়ায় তৈরি করে দেয়া হয় তার জন্ম সনদ। তারই ধারাবাহিকতায় এবার এই লেস্টার সিটির ফুটবলার পাচ্ছেন লাল-সবুজ পাসপোর্ট।

গেল মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাংলাদেশের পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে গিয়ে জটিলতায় পড়েন হামজা। এবার কেটে গেছে সব সমস্যা। ইংল্যান্ডের বাংলাদেশি দূতাবাসে সব প্রক্রিয়া মেনে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেছেন তিনি। একটি নির্ধারিত প্রক্রিয়া শেষে এই পাসপোর্ট হামজার হাতে পেতে মাসখানেক সময় লাগবে বলে আশা প্রকাশ করছে বাফুফে।

বাফুফের সাধারণ সম্পাদক তুষার বলেন, ‘হামজা বাংলাদেশ হাইকমিশন লন্ডনে আবেদনপত্র জমা দিয়েছে। প্রসেস শুরু হয়েছে। তার দ্বৈত নাগরিকত্বের জন্য আমরা আবেদন করেছি, আবেদন যাবে পাসপোর্ট অফিসে। সেখান থেকে ওরা এসবিতে পাঠাবে। এসবি থেকে রিপোর্ট পাসপোর্ট অফিস পাঠালে এই প্রক্রিয়া বাংলাদেশ থেকে সম্পন্ন হবে। এবং পাসপোর্ট আমরা কিন্তু বাংলাদেশ থেকে নিতে পারব না। এটা আবার যাবে লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাসে। এগুলোর জন্য একমাস সময় লাগবে।’

জুলাইয়ের মধ্যে হামজা চৌধুরী বাংলাদেশের পাসপোর্ট হাতে পেলেও এখনই মাঠে নামা হচ্ছে না তার। বাংলাদেশের হয়ে হামজাকে খেলাতে বাফুফেকে আবেদন করতে হবে ফিফা প্লেয়ার্স স্ট্যাটাস কমিটি বরাবর। এই প্রক্রিয়া শেষ হলে সেপ্টেম্বর উইন্ডোতে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে চাপাতে এই ইংলিশ ফুটবলারের আর কোনো সমস্যা থাকবে না বলে নিশ্চিত করেছে বাফুফে।

ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-২১ দলে খেলা হামজা চৌধুরী বর্তমানে খেলছেন ইংলিশ ক্লাব লেস্টার সিটিতে। চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন তিনি। দলকে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে উন্নীত করেছেন প্রিমিয়ার লিগে।

জীবন নিয়ে উক্তি