এবার কলার আইডি এবং স্প্যাম ব্লকিং সফটওয়্যার কোম্পানি ট্রুকলার ‘বিশ্বের প্রথম’ এআই কল স্ক্যানার ফিচার নিয়ে আসছে। যার সাহায্যে কলারের ভয়েস মানুষের নাকি এআই দিয়ে তৈরি তা শনাক্ত করা যাবে।

ট্রুকলার জানিয়েছে, তাদের নতুন এআই কল স্ক্যানার ফিচারটি ফোন আসার পর প্রথমেই কলারের ভয়েস কিছু সেকেন্ডের জন্য রেকর্ড করবে। তারপর ইনহাউস এআই মডেল ব্যবহার করে কণ্ঠস্বর বিশ্লেষণ করবে। এই প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই কলারের ভয়েস প্রকৃতপক্ষে একজন মানুষের নাকি এআই প্রযুক্তির মাধ্যমে নকল করা হয়েছে তা জানিয়ে দিবে।

যেসব ফোনে এই ফিচার কাজ করবে
ট্রুকলার অ্যাপের ১৪.৬ ভার্সন এই ফিচার চালু রয়েছে। তবে ট্রুকলারের প্রিমিয়াম ব্যবহারকারীরাই শুধুমাত্র এই বৈশিষ্ট্যটি অ্যাক্সেস করতে পারবেন। এই মুহূর্তে ফিচারটি আমেরিকায় পাওয়া যাবে। তবে দ্রুতই পর্যায়ক্রমে বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলেও চালু করা হবে বলে নিশ্চিত করেছে সংস্থাটি।

যেভাবে ব্যবহার করবেন এই ফিচার
প্রথমেই ট্রুকলারকে ফোনের ডিফল্ট কলিং অ্যাপ হিসেবে সেট করতে হবে। কোনো সন্দেহজনক কলার আইডি থেকে ফোন এলে স্টার্ট এআই ডিটেকশন বিকল্পে ক্লিক করতে হবে। ভয়েস রেকর্ড করার সময় কলটি কিছু সময়ের জন্য হোল্ডে চলে যাবে। এই সময়ে স্ক্রিনে ‘এনালাইজিং’ লেখা একটি টেক্স আসবে।

এবার ফলাফল পেতে কয়েক সেকেন্ডের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর প্রাপ্ত ফোনের কলার মানুষ নাকি এআই জেনারেটেড ভয়েস তার ফলাফল স্ক্রিনে দেখানো হবে৷

জীবন নিয়ে উক্তি