রেকর্ড এবং সাকিব আল হাসান যেন একে অপরের পরিপূরক। বাইশগজে নামলেই প্রতিনিয়ত কোনো না কোনো রেকর্ড গড়েন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। সর্বশেষ যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজের শেষ তথা তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে গতকাল অনবদ্য এক কীর্তিতে নাম লিখিয়েছেন তিনি। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৪ হাজার রান ও ৭০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। যদিও প্রথম দুই ম্যাচে আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশটির কাছে হারের লজ্জা পেয়েছে টিম টাইগার্স। আমেরিকার সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় গতকালকের ম্যাচটি ছিল নিয়মরক্ষার।

ধবলধোলাই এড়াতে নেমে ১০ উইকেটে বড় জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এদিন আমেরিকার ওপেনার আন্দ্রেস গাউসকে আউট করেন সাকিব। আর এতেই গড়ে ফেলেন অনন্য এক কীর্তি। এটি ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব সংস্করণ মিলিয়ে তার ৭০০ তম উইকেট।

তিন সংস্করণ মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৭০০ উইকেট পাওয়া ১৭তম বোলার তিনি। স্পিনারদের মধ্যে তার অবস্থান সপ্তম। বাঁহাতি স্পিনারদের মধ্যে শুধু নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ড্যানিয়েল ভেট্টোরির উইকেট সংখ্যা (৭০৫) তার চেয়ে বেশি। বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে সাকিবের ধারেকাছেও নেই আর কেউ। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মাশরাফির উইকেট সংখ্যা ৩৯০টি এবং তালিকার তিনে থাকা মুস্তাফিজুর রহমানের উইকেট ৩০৯ টি।

তিন সংস্করণের মধ্যে ওয়ানডেতে সাকিবের রান ও উইকেট সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। ওয়ানডেতে ২৪১ ইনিংসে সাকিবের শিকার ৩১৭ উইকেট এবং রান করেছেন ৭৫৭০। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে উইকেট শিকারির তালিকায় সাকিবের অবস্থান দ্বিতীয় (১৪৬)। ১৫৭ উইকেট নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়েছেন কিউই পেসার টিম সাউদি।

জীবন নিয়ে উক্তি