অনেকেই সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনেন। কেউবা বাজেটের মধ্যে পছন্দের মডেলের সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনেন। কমপ্যাক্ট হ্যাচব্যাক থেকে প্রশস্ত সেডান, রাগড এসইউভি থেকে স্টাইলিশ ক্রসওভার সব গাড়ির সেকেন্ড হ্যান্ড চাহিদা অনেক বেশি।

তবে জানেন কি কোন গাড়িগুলোর সেকেন্ড হ্যান্ড সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়? চলুন দেখে নেওয়া যাক-

১. মারুতি সুজুকি সেলেরিও
মারুতি সুজুকি সেলেরিও কমপ্যাক্ট হ্যাচব্যাক গাড়ি। পেট্রোল এবং সিএনজিতে চলে। গাড়ির মাইলেজ দেয় খুব ভালো, ১ লিটার পেট্রোলে ২৬ কিলোমিটার, অন্যদিকে ১ কেজি সিএনজিতে পাড়ি দিতে পারে ৩৫ কিলোমিটার। দাম ৬ লাখের মধ্যেই।

২. মারুতি ওয়াগনার আর
মারুতি ওয়াগনার আর-ও কমপ্যাক্ট হ্যাচব্যাক গাড়ি। পেট্রোল এবং সিএনজি, দুরকম জ্বালানিতেই চলবে। মাইলেজ দিচ্ছে ২৫.১৯ কিলোমিটার। ১ কেজি সিএনজিতে চলবে ৩৪.০৫ কিলোমিটার।

৩. মারুতি অল্টো কে১০
মারুতি অল্টো কে১০ হ্যাচব্যাক গাড়ি। পেট্রোল এবং সিএনজি-তে চলে। ১ লিটার পেট্রোলে (ম্যানুয়াল) ২৪.৪ কিলোমিটার এবং ২৪.৯ কিলোমিটার (অটোমেটিক) পথ পাড়ি দিতে পারে। ১ কেজি সিএনজিতে চলে ৩১.৫ কিলোমিটার। এক্স শোরুম দাম ৪ লাখের মধ্যেই।

৪. মারুতি ডিজ্যায়ার
মারুতি ডিজ্যায়ার সেডান গাড়ি। পেট্রোল এবং সিএনজি-তে চলে। ১ লিটার পেট্রোলে পাড়ি দিতে পারে ২৪ কিলোমিটার পথ। ১ কেজি সিএনজিতে চলবে ৩১ কিলোমিটার। এক্স শোরুম দাম ১০ লাখ টাকা।

৫. মারুতি সুইফট
মারুতি সুইফট হ্যাচব্যাক প্রকৃতির গাড়ি। পেট্রোল এবং সিএনজিতে চলে। ১ লিটার পেট্রোলে ২৩ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে পারে। ১ কেজি সিএনজিতে অতিক্রম করে ৩১ কিলোমিটার পথ। এক্স শোরুম দাম ৭ লাখের মধ্যে।

৬. হুন্দাই আই২০
হুন্দাই আই২০ হ্যাচব্যাক গাড়ি। পেট্রোল এবং ডিজেলে চলে। ১ লিটার পেট্রোলে পাড়ি দেয় ২০ কিলোমিটার এবং ১ লিটার ডিজেলে ২১ কিলোমিটার পথ। ভারতে এক্স শোরুম দাম ৮-১১ লাখ রুপির মধ্যে।

মা নিয়ে উক্তি