চুনকুড়ি সেতু নির্মাণে ২৬০ টাকা ঋণ দিয়েছে কুয়েত। বাংলাদেশ সরকার ও কুয়েত ফান্ড ফর অ্যারাব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্টের (কেএফএইডি) মধ্যে ‘চুনকুড়ি সেতু নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্প বাস্তবায়নে ২২ দশমিক ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থায়ন চুক্তি সই হয়েছে। প্রতি ডলার সমান ১১৭ টাকা ৫১ পয়সা ধরে বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ ২৬০ কোটি টাকা।

গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে ইআরডির অতিরিক্ত সচিব মিরানা মাহরুখ, এবং কেএফএইডির পক্ষে ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ওয়ালিদ আল বাহার ঋণ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

ইআরডি জানায়, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অধীনে সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো, বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে উপজেলা পর্যায়ে নিরবচ্ছিন্ন সড়ক নেটওয়ার্ক উন্নয়ন করা এবং উল্লিখিত সেতু ও অ্যাপ্রোচ রোড নির্মাণের মাধ্যমে দাকোপ, বটিয়াঘাটা ও খুলনার মধ্যে যাতায়াতকে আরও সুবিধাজনক ও দ্রুততর করা। এই প্রকল্পটি সুন্দরবন-সংলগ্ন এলাকার অর্থনৈতিক ও পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

কেএফএইডি ১৯৭৪ সাল থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন অগ্রাধিকারমূলক উন্নয়ন খাতের প্রকল্পে নমনীয় ঋণ সহায়তা প্রদান করে আসছে। এই ঋণ চুক্তিটি বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে অব্যাহত সহযোগিতার একটি উল্লেখযোগ্য নিদর্শন। উল্লিখিত ঋণটি নমনীয় ঋণ, যার বাৎসরিক সুদের হার ১ দশমিক ৫ শতাংশ। ডিসবার্সমেন্টের ওপর প্রশাসনিক চার্জ শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ এবং ঋণ পরিশোধ কাল ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৪ বছর।

মা নিয়ে উক্তি