কুয়েতের গৃহকর্মীদের (২০ নম্বর) ভিসা পরিবর্তন করে বেসরকারি খাতে (১৮ নম্বর) নেয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটি। বুধবার (২৬ জুন) কুয়েত নিউজ এজেন্সির বরাতে এ তথ্য দিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম আরব টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিরাপত্তা ও গণমাধ্যম-বিষয়ক বিভাগ ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে জনশক্তি আমদানির জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠক করেছে। বৈঠকে নেতৃত্ব দেন কুয়েতের প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী, প্রতিরক্ষা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং সরকারি জনশক্তি বিভাগের চেয়ারম্যান শেখ ফাহাদ ইউসুফ সৌদ আল-সাবাহ।

বৈঠকে শেখ ফাহাদ আল-ইউসুফ আল-সাবাহ বেসরকারি খাতে (ভিসা ১৮) কাজের ভিসায় গৃহকর্মী ভিসা (ভিসা ২০) স্থানান্তরের ওপর নিষেধাজ্ঞা অস্থায়ীভাবে তুলে নেয়ার জন্য একটি খসড়া আইন প্রস্তুত করতে জনশক্তি কর্তৃপক্ষকে দায়িত্ব দিয়েছেন। পাশাপাশি বৈঠকে শ্রম অভিবাসন খাতকে গতিশীল ও সুসংহত করার লক্ষ্যে বৈদেশিক কর্মসংস্থান নীতি নিয়েও আলোচনা হয়। তবে ঠিক কবে নাগাদ এই আইন বাস্তবায়ন হবে তা ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়নি।

কুয়েতে গৃহকর্মী ভিসায় প্রায় লক্ষাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন। যারা দীর্ঘদিন ধরে খাদেম বা গৃহকর্মী ভিসা থেকে শন বা বেসরকারি খাতে ভিসা পরিবর্তন করার জন্য অপেক্ষায় ছিলেন। কুয়েত সরকারের এমন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে এসব প্রবাসীরা উপকৃত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

মা নিয়ে উক্তি