রমজান উপলক্ষে সংযুক্ত আরব আমিরাতজুড়ে সমবায় ও সুপারমার্কেটগুলিতে ১০ হাজার পণ্যে মূল্যছাড় দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দেশটির বাণিজ্য ও অর্থ মন্ত্রণালয়। যেখানে ভোজ্যতেল, চাল ও আটার মতো বেশ কয়েকটি জরুরি পণ্যের দাম ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত কমানো হবে।

এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে অ্যারাবিয়ান বিজনেস।

দেশটির মন্ত্রণালয়ের ভোক্তা সুরক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. হাশিম সাঈদ আল নুয়াইমি বলেছেন, ‘নির্বাচিত’ পণ্যগুলি কমদামে বিক্রি করাসহ বেশিরভাগ পণ্যের ওপর ৫০ থেকে ৭৫ শতাংশ ছাড় থাকবে। রমজান মাসে ৪৫০টি অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান তিনি।

এসব অভিযান সমবায় সমিতি, আউটলেট, মুদি দোকান এবং আমিরাতজুড়ে মাংস, মুরগি এবং মাছের বাজারগুলিকে মনিটর করবে।

আল নুয়াইমি আরও বলেছেন, ভোক্তাদের সুরক্ষায় এবং বাজারের স্থিতিশীলতা বাড়াতে রমজান মাসে মন্ত্রণালয় বেশ কিছু সচেতনতামূলক উদ্যোগ নেবে। ভোক্তারা তাদের অভিযোগ ৬০০৫২২২২৫ নম্বরে নথিভুক্ত করতে পারবেন। কল সেন্টারটি সকাল ৮টা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত খোলা থাকে।

এদিকে খালিজ টাইসম সূত্রে জানা গেছে, শারজাহ সমবায় সমিতিও রমজান উপলক্ষে ১০ হাজার পণ্যের দাম কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া সাপ্তাহিক অফারের অংশ হিসেবে এর বাইরেও আরও পণ্যে ছাড় দেওয়া হবে। ফেব্রুয়ারির ২২ তারিখ থেকে এই ছাড় কার্যকর হবে।

শুধু মূল্যছাড়েই থেমে থাকেনি প্রতিষ্ঠানটি। এর সঙ্গে রমজানের প্রতি সপ্তাহে দুটি সুজুকি ডিজায়ার গাড়ি, প্রতিটি ৫ হাজার দিরহাম মূল্যের ৩০টি আসবাবপত্রের গিফট কার্ড এবং ১ হাজার দিরহাম মূল্যের ৩২টি শপিং গিফট কার্ড ক্রেতাদের দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এ ক্ষেত্রে শর্ত হলো – যারা ৩০০ দিরহাম বা এর বেশি মূল্যের পণ্য ক্রয় করবেন তারা এই ক্যাম্পেইনে অংশ নিতে পারবেন।

এদিকে গত মঙ্গলবার দুবাইভিত্তিক খুচরাবিক্রেতা ইউনিয়ন কোপ ৪ হাজার পণ্যের ওপর ৫০ থেকে ৭৫ শতাংশ মূল্য ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে।

আমিরাতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলেছে, এবারের রমজান মাসে দুবাইয়ের বাজারে শাকসবজি এবং ফলের দৈনিক আমদানি ২১ হাজার টনে পৌঁছাবে এবং আবুধাবিতে দৈনিক আমদানি ৪ হাজার টন ছাড়িয়ে যাবে।