উপসাগরীয় দেশ কাতারে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সব সরকারি এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের জন্য সাপ্তাহিক কোভিড-১৯ এর টেষ্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

তবে যারা কোভিড-১৯ এর টিকা পাননি, এই নিয়ম শুধু তাদের জন্য প্রযোজ্য।

যারা একবার কোভিড-১৯ এ আক্রা’ন্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন, তাদের জন্যও এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে না।

এছাড়া বুধবার কাতারের মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে আরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ১৮ জুন শুক্রবার থেকে ক’রো’নার টি’কাপ্রাপ্তরা কাতারে বেশকিছু নতুন সুবিধা ভোগ করবেন।

এসব সুবিধার মধ্যে রয়েছে, যে কোনো ঘরে বা মজলিসে টিকাপ্রাপ্ত ১০ জন লোক একত্রিত হতে পারেবন। তবে যদি টি’কা প্রাপ্ত না হয়, তবে সেক্ষেত্রে ৫ জন।

আর ঘরের খোলা আঙিনায় সর্বোচ্চ ২০ জন টি’কাপ্রাপ্ত ব্যক্তি একসাথে জড়ো হতে পারবেন।

যদি টি’কা দেওয়া না থাকে তবে সেক্ষেত্রে ১০ জন জড়ো হতে পারবেন। এছাড়া ১৮ জুন থেকে বিয়েশাদির অনুষ্ঠান আয়োজন করা যাবে।

তবে এতে সর্বোচ্চ উপস্থিতির সংখ্যা হবে ৪০ জন। আর এঁদের মধ্যে শতকরা ৭৫ ভাগের টি’কা নেওয়া হতে হবে।

এদিকে কাতারে ক’রোনায় প্রতিদিন গড় আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা দেড়শ’র নিচে নেমে এসেছে।

আর যারা আ’ক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের বেশিরভাগই বিদেশ ফেরত যাত্রী।

দেশটিতে এরইমধ্যে ২৮ লাখের বেশি ক’রো’নার ডো’জ প্রয়োগ করা হয়েছে।

যদিও এ পর্যন্ত ৫০ বাংলাদেশিসহ মা’রা গেছে ৫৭৯ জন।