কুয়েতে মা’নবপাচারকারী চ’ক্রের অন্যতম হো’তা বাংলাদেশে আ’টক

উপসাগরীয় দেশ কুয়েতে মানবপাচারকারী চক্রের অন্যতম প্রধান হোতা আমির হোসেন ওরফে সিরাজ উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশের অ’পরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

কুয়েতের গোয়েন্দা সংস্থার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাকে গত ১৭ আগস্ট নরসিংদীর মাধবদী এলাকা থেকে আটক করা হয়।

সিরাজ উদ্দিন এবং আমির হোসেন এ ২ নামেই পরিচিত তিনি। ১৯ আগস্ট বুধবার দুপুরে সিআইডির অর্গানাইজড ক্রা’ইম ইউনিটের সিনিয়র সহকারী পু’লিশ সুপার (এএসপি) জিসানুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আমিরসহ চারজন মিলে ভালো বেতনে চাকরি দেয়ার প্র’লোভন দে’খিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কুয়েতে মান’বপা’চার করে আসছিলেন।

প্রতারণার মাধ্যমে ভু’ক্তভো’গীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিতেন তারা। কুয়েতে তিনজন গ্রে’ফতার হলেও পালিয়ে আসেন আমির হোসেন। এরপর দেশে এসে আ’ত্মগোপনে চলে যান।

জিসানুল হক বলেন, চক্রের সদস্যদের হাতে ৯ শতাধিক ভুক্তভোগী কুয়েতে পাচারের শিকার হয়। জনপ্রতি তা’দের কাছ থেকে ৬ লাখ বা তারও বেশি টাকা হাতিয়ে নেয় ওই চক্র। পাচা;রের ফাঁ;দ হিসেবে গমনেচ্ছুদের ভালো বেতনে চাকরির

প্রলোভন দেখিয়ে কুয়েতে পাঠাতেন। ভুক্তভোগীরা সেখানে গিয়ে চাকরি না পেয়ে দুর্বিষহ জীবনযাপন করতেন। সেখানে

খাদ্য ও বাসস্থান সংকটের ফলে তারা উদ্বাস্তু অবস্থায় কুয়েতের রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়াতেন তারা। পাচারের পর কুয়েতে ভু’ক্তভোগী’দের আ’ট’কে রেখে নি’র্যা’তন চালাতো ওই চক্র।

তিনি বলেন, প্রতারিত হওয়ার পর কয়েকজন ভুক্তভোগী কুয়েতের সরকারি এজেন্সি ও জনশক্তি কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন। এরপর কুয়েত পুলিশ বিষয়টি তদন্ত শুরু করে। অভিযোগের সত্যতা পেলে কুয়েত আদালতে এই চক্রের

সদস্যদের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা হয়। এই চক্রের মূল হোতা একজন কুয়েতি এবং তিন বাংলাদেশি চক্রের অন্যতম

সদস্য। এরপর কুয়েত আদালত তিন বাংলাদেশিকে তিন বছর কা’রাদ’ণ্ড ও অ’র্থদ’ণ্ডসহ বিভিন্ন মেয়াদে সা’জা দেয়। এবং কুয়েতের নাগরিক ও চক্রের মূল হোতাকে ছয় বছরের কা’রা’দণ্ড দেয়।

এএসপি বলেন, সম্প্রতি আন্তর্জাতিক মানবপাচারকারী তিন বাংলাদেশি যেকোনো উপায়ে পালিয়ে দেশে চলে আসেন।

একটি বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার দেয়া এমন তথ্যের ভিত্তিতে অ’ভিযা’ন চালিয়ে চ’ক্রের অন্যতম হো’তা আমির হোসেনকে আ;টক’ করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এছাড়া অপর দুই আসামিকে গ্রেফ’তারে’র চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি। সূত্রঃ জাগো নিউজ