কাতার দ’খলের জন্য ট্রাম্পের সম্মতি চেয়েছিল সৌদি আরব

প্রতিনিয়ত আমাদের বিশ্বে ঘটে চলেছে বিভিন্ন রকমের ঘটনা। তবে সমপ্রতি কালে বর্তমান বিশ্বে বেশ অ’স্থিরতা চলছে।

আজ থেকে প্রায় তিন বছর আগে কাতার দ’খল করার ব্যাপারে ট্রা’ম্পকে ‘প্রস্তাব দিয়েছিল’ সৌদি আরব। যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রকাশিত রা’জনীতি ও অ’র্থনীতিবিষয়ক গ্লোবাল ম্যাগাজিন ফ’রেইন পলিসিকে উদ্ধৃত করে গালফ টাইমস-সহ একাধিক গ’ণমাধ্যমে এই খবর এসেছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, সৌদির রাজা সালমান ২০১৭ সালের ৬ জুন ট্রা’ম্পের সঙ্গে কথা বলেন। আলাপকালে তিনি স্থল আ’ক্রমণের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সম্মতি চান।

কিন্তু ট্রাম্প তাতে রাজি হননি। তিনি কঠোরভাবে ওই প্র’স্তাবের বিরোধিতা করেন। এরপর জিসিসি অঞ্চলের সঙ্গে কুয়েতকে দ্রুত আলোচনায় বসার আহ্বান জানান।

২০১৯ সালের মে মাসে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল থেকেও একই ধরনের খবর প্রকাশ করা হয়। এই সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে কাতারে আ’ক্রমণ চালাতে সৌদি সেনাবাহিনীর প্রস্তুতি নেয়ার কথা বলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব এবং কাতারের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নর্থ ফিল্ডের প্রাকৃতিক গ্যাসও দখলের পরিকল্পনা ছিল তাদের।

জ’ঙ্গিদের সঙ্গে কাতারের সম্পর্ক আছে-এমন অভিযোগ তুলে ২০১৭ সালের জুনে দেশটির স’ঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব এবং বাহরাইন।

এই চার দেশ ওই সময় ইরানের সঙ্গে কাতারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের বিষয়েও আপত্তি তোলে।