সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা নিপুনের ‘বীরত্ব’। সিনেমাটি দেখতে পরিচালক সাইদুল ইসলাম রানা ও অন্যান্য কলাকুশলীরাসহ নিপুনরা বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজবাড়ীর সাধনা সিনেমা হলে যান।

তবে দুপুরের শো দেখার জন্য সেসময় পর্যন্ত কেউ টিকিট কাটেননি। পরে নায়ক-নায়িকা হলের সামনে এসে গাড়ি থেকে নামলে একনজর দেখতে ভিড় করেন উৎসুক জনতা।

এরপর নায়ক-নায়িকা হলের মধ্যে প্রবেশ করলে সিনেমাটি চালানো হয়। তখন মাত্র ১৫টি টিকিট বিক্রি হয়। অবশ্য সিনেমা দেখার চেয়ে নায়ক-নায়িকা দেখার আগ্রহের কারণেই টিটিকগুলো কিনেন দর্শকরা।

এর আগে বীরত্ব ছবির সকালের শো’তে মাত্র চারটি টিকিট বিক্রি করেন হল কর্তৃপক্ষ। দুপুরের শোতে দর্শকদের সঙ্গে হলে কিছুক্ষণ সিনেমা দেখে বের হয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন পরিচালক সাইদুল ইসলাম রানা, নায়ক ইমন ও নায়িকা নিপুণসহ অন্য কলাকুশলীরা।

সেসময় চিত্রনায়ক ইমন বলেন, ‘বীরত্ব ছবিটি সারাদেশে হাউসফুল যাচ্ছে। দর্শকদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন তারা।’

সেসময় সাংবাদিকরা নায়ক ইমনকে প্রশ্ন করেন, আপনি জানালেন বীরত্ব ছবি সারাদেশে হাউসফুল যাচ্ছে। কিন্তু এই হলে সকালের শোতে মাত্র চারটি টিকিট বিক্রি হয়েছে। আর দুপুরের শোতে আপনারা হলে ঢোকার আগ মুহুর্ত পর্যন্ত একটি টিকিটও বিক্রি হয়নি। এ বিষয়ে আপনি কি বলবেন?

উত্তরে ইমন বলেন, ‘সকালের শোতে যে চারটি টিকিট বিক্রি হয়েছে এজন্য আলহামদুলিল্লাহ্। কারণ সকালের শোতে কেউ আসে না। অনেক বড় বড় ছবিতে সকালের শোতে দর্শক হয় না। আসলে শোটা ধরে হচ্ছে ইভিনিং শো। ইভিনিং শোটা সবজায়গায় ভালো যায়। আজকেতো আমরা বেশ হাউসফুলই দেখলাম। তো এইভাবে যদি সব জায়গাতেই ভালো যায় ওইটাই আমাদের কাছে সবচেয়ে বড় পাওয়া।’

সাধনা সিনেমা হলের অপারেটর হাসান আল মামুন বলেন, হলে দর্শক খুবই কম। বুধবার বীরত্ব সিনেমার সকালের শোতে মাত্র চারটি এবং দুপুরের শোতে নায়ক-নায়িকা আসার পর ১৫টি টিকিট বিক্রি হয়েছে।

উল্লেখ্য, রাজবাড়ী গোয়ালন্দ ও দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর নারীদের দিয়ে বিভিন্ন ক্রাইমের বিরুদ্ধে লড়ে যাওয়া একজন ডাক্তারের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে বীরত্ব। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন নায়ক ইমন। ১৬ সেপ্টেম্বর দেশের ৩৫ টি হলে মুক্তি পায় সিনেমাটি।