দেশের আলোচিত ও সমালোচিত মডেল আশরাফুল আলম সবার কাছে পরিচিত হিরো আলম নামে। জংলি সেজে আফ্রিকার ভাষায় গান, ইংরেজি ভাষায় টাইটানিকের সেই বিখ্যাত গান কিংবা মরুভূমির ওপর আরব শেখের সাজে আরবি ভাষায় গান থেকে শুরু করে সম্প্রতি আলোচনায় আসা রবীন্দ্রসংগীত – নানা বৈচিত্রতার নিয়ে হাজির হন হিরো আলম।

এসবের মাধ্যমেই সবার কাছে হিরো আলম পরিচিতি পেয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়া স্টার হিসেবে।

এবার হিরো আলম নজরে এসেছেন সৌদি আরবের গণমাধ্যম আরব নিউজে। গতকাল বৃহস্পতিবার আরব নিউজ হিরো আলমকে নিয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ‘পুলিশের তোপের মুখে বেসুরো বাংলাদেশি সোশ্যাল মিডিয়া স্টার’ শিরোনামে ওই হিরো আমলের সম্প্রতি পুলিশের কাছে মুচলেকা দেওয়ার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

হিরো আলমের বিপুল সংখ্যক ফলোয়ারের বিষয়টি উল্লেখ করে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেসুরো বাংলাদেশি গায়ককে পুলিশ তুলে নিয়ে গিয়ে ক্ল্যাসিকাল গানের বেদনাদায়ক উপস্থাপনা বন্ধ করতে বলেন। এই ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র ক্ষোভের জন্ম দেয়। ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়। বগুড়ায় জনপ্রিয়তা পাওয়ার পরই ‘হিরো’ নাম নেন তিনি।

হিরো আলম বলেন, আমরা নিজেকে একজন নায়কই মনে হয়। তাই আমি হিরো আলম নাম নিয়েছি।

যাই হোক না কেন আমি এই নাম বদলাবো না। এদিকে, কখনো রবীন্দ্র সঙ্গীত ও নজরুলগীতি গাইবেন না বলে মুচলেকা দেওয়ার পর নিজের লেখা ও সুরে ‘আমার জেল হবে না ফাঁসি হবে’ শিরোনামে নতুন গান গেয়েছেন হিরো আলম।

অন্যের গান না গাইলেও ভক্তদের জন্য মৌলিক গান করে যাবেন বলে জানিয়েছেন হিরো আলম।

নতুন গান নিয়ে হিরো আলম বলেন, আমি বলেছি অন্যের গান করব না। কিন্তু গান ছেড়ে দেব এমনটি বলিনি।

ভক্তদের জন্য আমি গান করে যাব। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি এখন থেকে মৌলিক গান করব। যাদের ভালো না লাগে তারা আমার গান না শুনলেই হয়।

তিনি আরও বলেন, আমি শুধু গান নয়, যে কোনো কন্টেন্ট তৈরির সময় সতর্ক থাকব। আগামীতে দর্শকদের ভালো কিছু উপহার দিতে চাই।

আসলে আমার কণ্ঠটাই এমন। আমি ইচ্ছা করে বা কাউকে ছোট করে কখনো গান করিনি। আপনারা আমাকে নতুনভাবে দেখবেন। দয়া করে আমার কন্টেন্ট না দেখে কেউ মন্তব্য করবেন না।