জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমান এখন রয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। আসছে ঈদুল আজহায় বাড়িতে ফেরার সম্ভাবনা নেই তার। বাড়িতে না থাকলেও তিনি ঈদে গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রামে দুটি গরু ও দুটি ছাগল কোরবানি দেবেন।

কোরবানীর জন্য এ চারটি গরু ও ছাগল কেনা হয়ে গেছে। তবে মুস্তাফিজ বাড়িতে না থাকতে পারায় পরিবারের সদস্যদের মন খারাপ। অবশ্য সবার আগে দেশ। এটাও জানেন পরিবারের সবাই।

তারকা ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমানের ভাই মোকলেছুর রহমান পল্টু বলছিলেন, ‘এবার ঈদে মোস্তাফিজের বাড়িতে ফেরার সম্ভাবনা নেই। তবে প্রতিদিনই বাড়িতে কথা বলে খোঁজখবর নেয় সে।

এ বছর ঈদে মুস্তাফিজ দুটি গরু ও দুটি ছাগল কোরবানি করবে। কোরবানির পশুগুলো ইতোমধ্যে বাড়িতে এসে গেছে।’

পরিবারের আদরের ছেলে কাছে নেই, স্বাভাবিকভাবে মা-বাবাসহ পরিবারের বাকি সদস্যদের মন খারাপ। এ তথ্য জানিয়ে তিনি বলেন, ‘পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদের সময় কাটাতে দূর-দূরান্ত থেকে বাড়িতে ছুটে আসেন সবাই। এবার ঈদে বড় ভাই মাহফুজুর রহমান মিঠু বাড়িতে আসবেন না।

মুস্তাফিজও নেই। সব মিলিয়ে পরিবারের সব সদস্যদের একটু মন খারাপ রয়েছে। তবে এটা আমরা মেনে নিয়েছি।’

মুস্তাফিজের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হাফিজুর রহমান হাফিজ বলছিলেন, ‘আগামী ২০ তারিখে দেশে ফেরার কথা রয়েছে মুস্তাফিজের। তবে ঈদ তো সামনের ১০ জুলাই।

এমনিতে ও থাকলে ঈদের সময় এক সঙ্গে আমরা খুব আনন্দ করে ঘুরে বেড়াই। তবে ও বাড়িতে না থাকায় এবার ঈদে সেই আনন্দ আর হচ্ছে না। আমি মুস্তাফিজের গরু ও ছাগলগুলো কোরবানির কাজে সহায়তা করে সময় কাটাব।’