কুয়েতে ১০ দিনে নিজ দেশে গিয়ে আ’টকে থাকা ৯৩৫ টি আকামা বাতিল

অনলাইন সার্ভিসগুলোর সহজলভ্যতা এবং করোনা ম’হামারী, ল’কডাউন, বিমানবন্দর বন্ধ এবং কুয়েতে ফিরে যাওয়ার অসুবিধার কারণে বিদেশে আ;টকে থাকা বিদেশী কর্মীদের জন্য কাজ এবং আবাসের অনুমতি নবায়নের অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত সত্ত্বেও রেসিডেন্সি পারমিটগুলি প্রতিদিন বাতিল হয়। খবর কাবাস প্রতিদিন

জনশক্তি কর্তৃপক্ষ (পিএএম) শুক্রবার একটি পরিসংখ্যান প্রতিবেদন প্রকাশ করে জানিয়েছে যে স্পনসর বা সংস্থাগুলো তাদের কাজের অনুমতি নবায়নে ব্যর্থতার কারণে গত ১০ দিনে প্রতিদিন গড়ে ৯৩৫ বিদেশী কর্মীর রেসিডেন্সি পারমিট বাতিল করা হয়েছে।

এই প্রবাসীরা নিজ দেশে গিয়ে আটকে পড়েছেন, আর ফ্লাইট বন্ধের কারনে কুয়েতে ফিরতে পারেনি।

পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ১২ জানুয়ারীতে নতুন ‘অ্যাশল’ সিস্টেম চালু হওয়ার পর থেকে রেসিডেন্সি পারমিটের সংখ্যা বাতিল হয়েছে বিভিন্ন কারণে,যা ২৭১৬ তে পৌঁছেছিল – মৃ;ত্যু’র কারণে ১৯৭ জন এবং দেশ ছেড়ে চলে যাওয়া ১,৫৮৪;

একই সময়ে প্রায় ৩০ হাজার প্রবাসীর ওয়ার্ক পারমিট নবায়ন করা হয়েছে।

এদিকে কুয়েতের সিভিল এভিয়েশন এর মহাপরিচালক ২৪ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত কুয়েত ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে আগত যাত্রীদের সংখ্যা হ্রাস করার জন্য সমস্ত বিমান সংস্থার প্রতি একটি সিদ্ধান্ত জারি করেছে।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডিজিসিএ শর্ত দিয়েছে যে আগত যাত্রীদের সংখ্যা প্রতিদিন এক হাজার যাত্রীর বেশি হওয়া উচিত না। এই সিদ্ধান্তটি কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ করতে এবং এর বিস্তার সীমাবদ্ধ করতে আগামী দুই সপ্তাহ সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের নির্দেশের ভিত্তিতে দেওয়া হয়েছে।