সৌদিতে বিনিয়োগের ঘোষণা কাতারের

গত ২০১৭ সাল থেকে টানা সাড়ে ৩ বছর উপসাগরীয় দেশ কাতারের সাথে সব ধরণের সম্পর্ক ছি;ন্ন করে রেখেছিল প্রতিবেশি দেশ সৌদিআরব।

এখন সেই সংকট সমাধানের পর সেই সৌদি আরবে বিনিয়োগের কথা ভাবছে কাতার।

সম্প্রতি কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, আল-উলা চুক্তির পর কূটনৈতিক উ;ত্তেজনা কমে এসেছে।

ফলে কাতার এখন প্রতিবেশি দেশ সৌদি আরব ও অন্যান্য উপসাগরীয় দেশগুলোতে বিনিয়োগ করার কথা ভাবছে।

কাতার বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভবিষ্যতে যদি এমন সুযোগ থাকে ও দেশগুলোর রাজনৈতিক ইচ্ছার ধারাবাহিকতা বজায় থাকে, তবে কাতার সব বিষয়ে খোলামেলা থাকবে।

কাতার বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ এমন একটি বিনিয়োগ তহবিল যেটি বিনিয়োগ করার আগে নিজের ব্যবসায়িক সুবিধা ও প্রকল্পগুলোর ভবিষ্যৎ সম্ভাব্যতার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে।

আর সেজন্য বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ বলছে, আমরা সৌদি আরবে খুব ভালো কিছু সুযোগ দেখেছি।

কাতার সেগুলোতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী।

কাতার বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ বিষয়গুলো অনুসন্ধান করবে।

এদিকে উপসাগরীয় দেশ কাতার ও সৌদিআরবের মধ্যকার স্থল সীমান্ত খুলে দেওয়ার পর গত তিনদিনে কাতার থেকে সৌদিআরবে প্রবেশ করেছে ৮৩৫ টি গাড়ি।

অন্যদিকে সৌদিআরব থেকে কাতারে ঢুকেছে ৯৫ টি গাড়ি। কাতারের আবু সামরা এলাকায় এই স্থল সীমান্ত অবস্থিত। দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর এটি বন্ধ থাকার পর গত ৫ জানুয়ারি তারিখে তা খুলে দেওয়ার ঘোষণা আসে।