গত ৩ মাসে বাংলাদেশ বিমানের লোকসান প্রায় ১ হাজার ২ শত কোটি টাকা!

করোনা যা বর্তমান বিশ্বের একটি ভয়ংকর নাম। যাকিনা প্রান কেড়ে নিয়েছে প্রায় লাখ লাখ মানুষের। আর পুরো বিশ্বকে করে দিয়েছে স্থগিত। আর এর ক্ষতি এখনও সবাই পুষিয়ে উঠতে পারছে না।

করোনা ভাইরাসের বন্ধ হওয়া আকাশপথ খোলার চার মাস পরও ভিসা জটিলতা ও বিভিন্ন দেশের নানা বিধি-নিষেধের কারণে আন্তর্জাতিক রুটে কাঙ্ক্ষিত যাত্রী পাচ্ছে না বাংলাদেশি এয়ারলাইন্সগুলো।

যদিও উড়োজাহাজ লিজের ভাড়া, ঋণের সুদ ও রক্ষণাবেক্ষণে খরচ বাবদ বিপুল অর্থ ব্যয় করতে হচ্ছে। এতে গত তিন মাসে বাংলাদেশ বিমানের মোট লোকসান হয়েছে ১২৩৩ কোটি টাকা।

একই রকম সংকটে পড়ে আছে বেসরকারি বিমান সংস্থাগুলোও। করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার পর একে একে বন্ধ হতে থাকে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল।

এরপর স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত ১৬ জুন থেকে আন্তর্জাতিক রুটে সীমিত পরিসরে ফ্লাইট চালু হয়। বিভিন্ন দেশ পর্যায়ক্রমে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে ১৮টি রুটে সরাসরি ফ্লাইট যাচ্ছে।