ফ্রান্সে কৃষি খামার গড়ে তুলেছেন প্রবাসী বাংলাদেশি

আবহাওয়া যেমনই হোক, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কৃষি খামার গড়ে তুলছেন বাংলাদেশিরা। ফ্রান্সেও এমনই এক কৃষি খামার গড়েছেন বাংলাদেশের আইয়ুব আলী। প্রবাসী বাংলাদেশিরা উৎসাহ পাচ্ছেন তার এমন কাজে।

কৃষিনির্ভর বাংলাদেশের মানুষ পৃথিবীর যে প্রান্তেই গেছেন সেখানেই ছড়িয়েছেন ফসলের সুবাস। এক সময় শুধু মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোয় বাংলাদেশিরা আবাদ করলেও এখন বাদ যাচ্ছে না শীত প্রধান ইউরোপের বিভিন্ন দেশ।

ফ্রান্সেও এমনই এক কৃষি খামার গড়ে তুলেছেন বাংলাদেশের আইয়ুব আলী। রাজধানী প্যারিস থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে এক গ্রামে আইয়ুব আলীর এই খামার।

ইউরোপে এসেও কেন কৃষিকে বেছে নিলেন, সে কথা বলতে গিয়ে জানালেন, শখের বশেই খামারটি গড়ে তুললেও দূর দূরান্ত থেকে আসা প্রবাসীরা উৎসাহ যোগাচ্ছে তার কাজে।

খামারি আইয়ুব আলী বলেন, ‘এখানে আমার বিশেষত্ব হচ্ছে, সম্পূর্ণ জৈব সারের ভিত্তিতে আমি এখানে ফসল উৎপন্ন করি। যেখানে কোন ধরণের কেমিক্যাল ব্যবহার করি না।

শুধুমাত্র অর্গানিক জৈব সার ব্যবহার করি। যেহেতু আমি মানব সেবা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই সেবাটা আমি সঠিকভাবে করতে চাই।’ প্রবাসী বাংলাদেশিরা অনুপ্রাণিত হচ্ছেন তার খামার দেখে। আমার মনেও একটি স্বপ্ন জেগে উঠেছে।

এক প্রবাসী বাংলাদেশি বলেন, ‘এই খামার দেখি আমি অনেক উৎসাহিত। এই ধরনের একটি খামার যেন আমিও করতে পারি। আর ফ্রান্সে যেহেতু অনেক অনাবাদি জমি পড়ে আছে আমরা এই সুযোগটা কাজে লাগাতে পারব।’ বাংলাদেশি টমেটো শসা কুমড়াসহ সব ধরনের সবজি পাওয়া যায় তার এই কৃষি খামারে।

বিশ্বময় দ্রুত সম্প্রসারিত হচ্ছে বাংলাদেশীদের কৃষি উদ্যোগ যার একটি অংশ এই কৃষি খামারও। তার এই খামার থেকে উৎসাহিত হয়ে অন্য বাংলাদেশিরা আরও কৃষি খামার গড়ে তুললে সেখানে কর্মসংস্থান হতে পারে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশির এমনটাই মনে করেন খামারি আইয়ুব আলী।